নিজস্ব প্রতিবেদক: বোয়ালখালী উপজেলার হাজিরহাট এলাকার একটি ভাড়াবাসা থেকে দেড় বছর বয়সী শিশুকন্যাসহ মায়ের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সোমবার (৩০ মার্চ) বিকেলে উপজেলার পূর্বগোমদণ্ডী হাজিরহাট এলাকায় ভাড়া বাসা থেকে লাশ দুইটি উদ্ধার করে পুলিশ।

বোয়ালখালী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মুহাম্মদ হেলাল উদ্দীন ফারুকী বলেন, শারমিন আক্তার (২৭) ও তার দেড় বছর বয়সী মেয়ে তাসলিমার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। শারমিন আক্তার উপজেলার পশ্চিম গোমদণ্ডী ফুলতল এলাকার মো. সেলিমের ২য় স্ত্রী। তারা হাজিরহাট এলাকায় ভাড়া থাকতেন।

উদ্ধার করা মরদেহ দুইটি ময়না তদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে জানিয়ে পুলিশ কর্মকর্তা হেলাল উদ্দীন ফারুকী বলেন, এটি হত্যা নাকি আত্মহত্যা বলা যাচ্ছে না। শারমিনের স্বামী সেলিমকে পুলিশ হেফাজতে নিয়ে আসা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, মা ও মেয়েকে একই রশিতে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখা গেছে। তবে পুলিশ এখন এটি আত্মহত্যা নাকি হত্যা তা নিশ্চিত হতে পারেনি।

জেলা পুলিশ সুপার এসএম রশিদুল হক বলেন, ঘটনাটি আমরা গুরুত্ব সহকারে দেখছি। তদন্ত চলছে।

জানা গেছে, গত ২ বছর ৪ মাস পূর্বে নোয়াখালী জেলার কবির হাট থানার চড়মন্ডলিয়া গ্রামের তাহের মন্ডলের বাড়ীর আবু তাহের মন্ডলের মেয়ে শারমিন আকতারের সাথে বোয়ালখালী পৌরসভার পশ্চিম গোমদন্ডী ৯নং ওয়ার্ডের জুনু মিয়ার ছেলে মো. সেলিম ২য় বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন । বিয়ের পর তারা হাজির হাট এলাকায় ভাড়া বাসায় বসবাস করে আসছিলেন । তাদের সংসারে তাসলিমা নামের এক কন্যাশিশু জন্ম নেয়। উভয়ের ২য় সংসারে শারমিনের সাথে প্রথম ঘরে ছেলে ইমাম হোসেন (৭) থাকতো । সেলিম উপজেলা জাতীয় শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক।

প্রত্যক্ষদর্শী ইমাম পুলিশকে জানিয়েছে, সৎ বোনকে ফ্যানের সাথে ঝুলিয়ে তাকেও ঝুলানোর চেষ্ঠা করে শারমিন, তবে সে ওই সময়ে পালিয়ে গিয়ে বাসার দারোয়ানকে এ ঘটনা জানায়।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here