বোয়ালখালীতে মুক্তিযুদ্ধের স্মারক উম্মোচন অনুষ্ঠানে এ্যাড. রানা দাসগুপ্ত 

সেন বাড়ি বেচে থাকলে মুক্তিযুদ্ধ বেচে থাকবে

প্রতিনিধি,

১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় বোয়ালখালীর এই সেন বাড়িতে আমি নিজেও আশ্রয় নিয়েছিলাম, মরহুম আবুল হোসেন কমান্ডারের নেতৃত্বে যুদ্ধে অংশ নিয়ছিলাম।

No description available.এসময় শনিবার (১৩ নভেম্বর) বিকেলে মুক্তিযুদ্ধে অনবদ্য অবদান রাখা চট্টগ্রামের বোয়ালখালীর জ্যৈষ্ঠপুরায় মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি বিজড়িত ঐতিহাসিক সেনবাড়িতে মুক্তিযুদ্ধের স্মারক উম্মোচন অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ হিন্দু- বৌদ্ধ-খ্রীস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি, আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল প্রসিকিউটর এ্যাড. রানা দাসগুপ্ত প্রধান অতিথি’র বক্তব্যে এ কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, সেন বাড়ির স্মারকটির মধ্য দিয়ে আগামী প্রজন্মের মাঝে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি বহন করবে। যদি নতুন প্রজন্মের কাছে সঠিক ইতিহাস তুলে ধরতে না পারি তাহলে আমাদের ব্যর্থতা হবে। বোয়ালখালীতে স্বাধীনতার ইতিহাস সম্বলিত স্মৃতি নিয়ে একটি যাদুঘর নির্মানের আহবান জানান তিনি।

No description available.অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, দেবেন্দ্র লাল সেনের কনিষ্ট সন্তান রনজিত কুমার সেন। সিবাশীষ সেন শংকুর সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি’র বক্তব্য রাখেন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. নুরুল আলম যুদ্ধকালীন কোম্পানি কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল বশর, বিএলএফ কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা রাজেন্দ্র প্রসাদ চৌধুরী, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন কাউন্সিলর শৈবাল দাশ সুমন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি নুরুল আমিন চৌধুরী, শিক্ষা ও মানব বিষয়ক সম্পাদক সাংবাদিক সেকান্দর আলম বাবর, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল লতিফ, বীর মুক্তিযোদ্ধা আমিনুল হক, ইউপি চেয়ারম্যান মো. মোকারম, কাজল দে, বোয়ালখালী প্রেস ক্লাব সভাপতি এস এম মোদ্দাচ্ছের, শ্রীপুর খরণদ্বীপ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি রতন চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন খোকন ও সঞ্জয় দে।

Print Friendly, PDF & Email

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here